Akash megh sopno kobita : আকাশ মেঘ স্বপ্ন – জ্যোতিরিন্দ্র মৈত্র

+ প্রিয়জনের কাছে শেয়ার করুন +
পাখিদের শাদা পালক খুঁজে পেলে
আমিও হতাম মেঘ ।
হাওয়ার হাতে হাত দিয়ে চলে
আমিও হতাম বেগ ।
আর আকাশ হত অসীম নীল স্বপ্ননামাবলি,
গহন মনের রূপকথা-রং পূর্ণিমারই গলি ।
কিন্তু এখন এ সব কিছুই নেই
সপ্তডাঙা নদী সাগর ভাসছে ভাদরেই ।
আমি তাই প্রাণের বন্ধু যৌবনকে বলি –
জীবনটাকে ছুঁড়লে কোথায় বোমার মতো মেরে ?
না–বুঝে কোন পাশের বন্ধু পশুর মতো তেড়ে
মা দুর্গার অসুর হয়ে আসে ।
সুরাসুরের দ্বন্দ্ব অট্টহাসে ।
ওদিকে দেখি বিস্ফোরণের মুখভর্তি রক্ত থলো-থলো  ।
হঠাৎ-লাগা গুলির ঘায়ে
ফুটপাতের ঐ যক্ষ্মারোগী বুড়োই বুঝি ম’ল ।
হয়তো কোন আশা নিয়ে তপ্ত আগুন দিন
হঠাৎ ছুটে আসে ।
এসে দেখে যৌবনকে মারছে ইতিহাস,
অনেক দিনের টুকরো কথা বানের জলে ভাসে ।
কিন্তু কোন আশা নেই এখন আপাতত ।
শুনছ, কোন ষষ্ঠীর ঢাক বাজছে বোধনে ।
সমাজ দেশ ইতিহাস কাঁপছে ঝোড়ো হাওয়ায় ।
লক্ষ্ণীর পা আলপনা নেই গ্রাম-মানুষের মনে ।
ডানাভাঙা ছেঁড়াখোঁড়া স্বপ্ন-পালকগুলো
রক্ত মেখে লাল ।
( উদ্ধত রাবণযুগ, আহত জটায়ু, আর মর্মাহত কাল )
যা-ই হোক, অন্য কিছু না-ই বা যদি থাকে,
তুমি আমি নাচব শেষে বিসর্জনের ঢাকে ।
+ প্রিয়জনের কাছে শেয়ার করুন +

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কবিকল্পলতা অনলাইন প্রকাশনীতে কবিতা ও আবৃত্তি প্রকাশের জন্য আজ‌ই যুক্ত হন